নব্বই দশকের বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মুনমুন। ১৯৯৭ সালে বিখ্যাত পরিচালক এহতেশামের মাধ্যমে বড়পর্দায় অভিষেক হয় তার।

ইরাকে জ’ন্ম নেওয়া এ অভিনেত্রী অসংখ্য ব্য’ব’সাসফল সিনেমা উপহার দিয়েছেন। ২০০৩ সালে এক লন্ডন প্রবাসীকে বি’য়ে ক’রেছিলেন। ২০০৬ সালে বিচ্ছেদ হয় তাদের। প্রথম সংসারে মুনমুনের একটি সন্তানও রয়েছে। তারপর ২০১০ সালে ভালোবেসে রোবেন নামে এক মডেলকে বি’য়ে ক’রেন মুনমুন।

বয়সে ছোট রোবেনের স’ঙ্গেও বিচ্ছেদ হয় এ অভিনেত্রীর। বিচ্ছেদের পর ভালোই আছেন বলে জানান মুনমুন। সন্তানের স’ঙ্গে নিয়েই তার সময় কাটে। বিচ্ছেদের অতীত ভু’ল ে নতুন ক’রে সামনে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টার ক’র’ছে’ন মুনমুন। এরই মধ্যে দেশীয় একটি গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকারে মুনমুন জানান,

মনের মতো গোছানো কোনো ভালো ছেলে পেলে এ বছর বা আগামী বছরের যেকোনো সময় বি’য়ের পিঁড়িতে বসতে পারেন তিনি। এ প্রস’ঙ্গে মুনমুন বলেন, ‘বি’য়ের পরি’ক’ল্প’না আছে। জীবন কারও জন্য থেমে থাকে না। জীবন চলবে জীবনের মতো।’ মুনমুন মনে ক’রেন, তার জীবনে যা ঘ’টেছে তা অনেক শিল্পীর জীবনেই ঘ’টে।

সব শিল্পীর মতো তিনিও স্বপ্ন দেখেন জীবনটাকে সাজিয়ে রাখার। তাই বি’য়েটা ভবিষ্যতের ওপর ছেড়ে দিয়েছেন। বিচ্ছেদের পর অভিনয় ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন মুনমুন। কিন্তু সন্তানদের কথা চি’ন্তা ক’রে সিদ্ধান্ত বদল ক’রেছেন এ অভিনেত্রী। বর্তমানে তার হাতে রয়েছে তিনটি সিনেমা। সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন আলোচিত এ অভিনেত্রী।