হিন্দুপ্রধান দেশের মু’সলিম সুপারস্টার। তার ওপর বিয়ে করেছেন হিন্দু ধ’র্মের অনুসারী নারীকে। সেই সংসারে আছে দুই পুত্র ও এক কন্যা। শাহরুখ খানকে নিয়ে যেমন আগ্রহ মানুষের তেমনি তার ধ’র্মীয় জীবন নিয়েও আগ্রহের শেষ নেই।

ব্যক্তিজীবনে কেমন তিনি? স্ত্রী’-সন্তানদের নিয়ে ধ’র্মীয় উৎসবগুলো কী’ভাবে পালন করেন? দুই ধ’র্মের অনুসারী বাবা-মায়ের সন্তান হিসেবে আরিয়ান, সুহানা ও আব্রাহাম কোন ধ’র্মে বেড়ে উঠছে- এসব তথ্য জানতে চান অনেকেই। সেই চাহিদা বোঝেন স্বয়ং শাহরুখ খানও।

ভা’রতের প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারি এক টিভি শোতে উপস্থিত হয়ে বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খান তার ইস’লামিক পরিচয় স’ম্পর্কে মুখ খুলেছিলেন। এই তারকার জন্ম’দিন আজ। বিশেষ দিন উপলক্ষে সেই আলোচনা তুলে ধ’রা হলো।

ওই টিভি অনুষ্ঠানে শাহরুখ খান বলেন, ‘আমি ইস’লামের নীতিতে বিশ্বা’স করি এবং আমি বিশ্বা’স করি যে ইস’লাম একটি ভালো ধ’র্ম। ঘরের ভেতরে আম’রা কখনো হিন্দু-মু’সলমান নিয়ে আলোচনা করি না। আমা’র স্ত্রী’ হিন্দু, আমি একজন মু’সলমান। আমাদের যে বাচ্চারা আছে, ওরা হিন্দুস্তানি।’

শাহরুখ আরও বলেন, ‘অনেক সময় স্কুলের ফরমে কোন ধ’র্ম সেটা পূরণ করতে হয়। আমা’র মে’য়ে যখন ছোট ও এসে জিজ্ঞাসা করেছিল বাবা আমি কোন ধ’র্ম লিখবো? উত্তরে বলেছিলাম, ‘আম’রা ভা’রতীয়, বিশেষ কোনো ধ’র্মের নই আর হওয়া উচিতও নয়।’

সেখানে শাহরুখ আরও জানান, তার বাড়িতে কারো ওপর কোনো ধ’র্ম চাপিয়ে দেওয়া হয় না। তারা সব ধ’র্মের উৎসবই পালন করে পরিবারের সদস্য হিসেবে। শাহরুখ খান এবং তার স্ত্রী’র মধ্যে ধ’র্মের বিশ্বা’স ও পালনে পার্থক্য থাকলেও তাদের বাড়িতে এ নিয়ে কোনো বিরোধ নেই। শাহরুখের বাড়িতে যেভাবে জমকালো আয়োজনে ঈদ উদযাপন করা হয় একইভাবে গণেশ চতুর্থীরও আয়োজনে কমতি থাকে না।